ঢাকা, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮, রবিবার রাত; ০৭:৩০:১৪
বার্তা »
  

দাওয়াত অর্থ


 

>    আহবান করা, ডাকা

আবার এর আরবী সমর্থবোধক শব্দ হলো

>    আযান (নামাজের জন্য যে আহবান যেমন )

>    নেদা (আয়াতঃ)

দাওয়াত দুই ধরণের হতে পারে

>    নেতিবাচকঃ

হাদিসঃ

রাসূল (সাঃ) বলেন যে ব্যক্তি জাহেলিয়াতের দিকে মানুষদেরকে ডাকে তার জন্য রয়েছে জাহান্নামের একটি অংশ। প্রশ্ন করা হলো সে যদি নামাজ পড়ে এবং রোজা রাখে জবাবে রাসূল বলেন যদি সে নামাজ পড়ে রোজা রাখে এবং বলে আমি একজন মুসলমান তবুও তার জন্য জাহান্নামের অংশ রয়েছে। - মুসলিম

>    ইতিবাচকঃ

>    দাওয়াতের দুটি দিক রয়েছে।

>    প্রকাশ্য দাওয়াত বা মৌখিক দাওয়াত

>    অপ্রকাশ্য দাওয়ত বা চারিত্রিক দাওয়াত

এ ক্ষেত্রে রাসূল (সাঃ) এর বাড়িতে মেহমান হিসেবে আগত ইহুদির আচরণ ও এর বিপরীতে রাসূল (সাঃ) এর ব্যহার উদহারণ স্বরূপ প্রযোজ্য।