ঢাকা, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮, রবিবার রাত; ০৭:৩২:২৭
বার্তা »
  

আক্রোশমুলক গ্রেফতারের তীব্র প্রতিবাদ

27 Nov 2011

.

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের অর্থ সম্পাদক ফরিদুল হুদাকে অন্যায় ও আক্রোশমুলক গ্রেফতারের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েয়েছেন সংগঠনের মহানগরী দক্ষিণের  সভাপতি ও সেক্রটারী । আজ ২৩ জুলাই ২০১০ মহানগরী দক্ষিণের সভপতি আ·স·ম ইয়াহইয়া ও সেক্রেটরী সাজেদুর রহমান শিবলী  এক যৌথ বিবৃতিতে জানান গত ২২ জুলাই দিবাগত গভীর রাত ৩ টার সময় সায়দবাদের বাসায় ডিবি পরিচয়ে ৭/৮ জনের একটি দল বাড়ির নিচ তলার মেইন গেটের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। এ সময় তালা ভাঙ্গার শব্দে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। বাসার দরজাগুলো ভেঙ্গে ফেলার উপক্রম করে আঘাত করলে মানুষের ঘুম ভেঙ্গ যায়। হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ বাবার সেবা করে রাত ১টার দিকে বাসায় ফিরে ঘুমাচ্ছিল শিবির নেতা ফরিদুল হুদা। তাকে কিল ঘুষি দিয়ে প্রথমে আঘাত করে এবং ছাত্রশিবিরের দায়িত্বশীলদের পরিচয় জানতে চায়। পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ডিবির পরিচয়ধারী লোক সঙ্গে নিয়ে আসা ১টি পিস্তল দেখিয়ে বলে এটি তোর । এটা তুই কোথায় পেলি ? ফরিদুল হুদা তার এ সাজানো নাটকের  প্রতিবাদ করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং সবার সামনেই চড়-থাপ্পর মারে। অথচ তার নামে থানায় কোন মামলা তো দুরের কথা একটি জিডি পর্যন্ত নেই। তাকে সম্পূর্ন বেআইনি ও অন্যায় মুলকভাবে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। এবং যাওয়ার সময় গ্রেফতারের ভয় দেখিয়ে আশেপাশের লোকজনের কাছ থেকে সম্পূর্ন ফাঁকা সাদা কাগজে শুধু উপরে লেখা “হলফনামা” তে ৪ জনের স্বাক্ষর নিয়ে চলে যায়। তার এ গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানয়েছেন ছাত্রশিবির নেতৃবৃন্দ। তাকে সাজানো মিথ্যে মামলা দিয়ে প্রশাসন আ’লীগের দলীয় ক্যাডারের ভূমিকা পালন করেছে। যা একটি স্বাধীন দেশের নাগরিক ও গণতন্ত্রের জন্য নিতান্তই দুঃখ জনক ও হতাশা ব্যাঞ্জক। সরকারী বাহিনীর নগ্নভাবে আ’লীগ দলীয় কাজ বাস্তবায়ন জনগনের সাথে প্রতারনা ছাড়া আর কিছুই না। প্রশাসনকে যদি এভাবে দলীয় এজেন্ডা বাস্তবায়নে ব্যবহার করা হয় তাহলে জনগন কখনোই আ’লীগ ও পুলিশকে ক্ষমা করেবেনা। পুলিশ বাহিনীর প্রতি জনগনের যে আস্থা ও বিশ্বাস এখনো আছে তা শেষ হয়ে যাবে। তারা আরও শঙ্কা করছেন যে, সরকারী বাহিনী আ’লীগের কথামত তাকে রিমান্ড নিয়ে তার প্রতি নির্মম নির্যাতন করা হতে পারে। নেতৃবৃন্দ তার জীবন ও সার্বিক সুস্থতা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন। তারা সরকারের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান যে, দেশের মানুষ আর নতুনভাবে রক্ষী বাহিনীর নির্মমতা দেখতে চায়না। অবিলম্বে শিবির নেতা ফরিদুল হুদার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান এবং সারা দেশে ছাত্রশিবিরের বিরুদ্ধে সরকার যে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চালাচ্ছে তা অবিলম্বে বন্ধ করার আহবান জানান।